বাংলাদেশ, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাতকানিয়ায় মামাতো ভাইকে গুলি চালানো শেখাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ সেই যুবকের মৃত্যু


প্রকাশের সময় :৯ নভেম্বর, ২০২১ ৯:৩৮ : পূর্বাহ্ণ

সাতকানিয়া প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায় মামাতো ভাইকে গুলি চালানো শেখাতে গিয়ে অসাবধানতবশত পেটে গুলি লাগার তিনদিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত পঙ্কজ তালুকদারা মারা গেছে।

সোমবার (৮ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন পঙ্কজের মৃত্যু হয় বলে নিশ্চিত করেছেন চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) জাহেদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, পঙ্কজের পেটের ডান পাশে লাগা গুলি লাগে। সেটি বের করতে গত ৬ নভেম্বর বিকেলে চমেকে সার্জারি করা হয়। অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। কিন্তু পরদিন হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখেন। সেখানেই তার মৃত্যু হয়েছে।

জানা গেছে, পঙ্কজ তালুকদার চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নর বাসিন্দা। সে পূজা উপলক্ষে একই উপজেলার দক্ষিণ কাঞ্চনায় মামার বাড়ি বেড়াতে যায়। সেখানে গত ৫ নভেম্বর রাতে মামাতো ভাইকে গুলি চালানো শেখাতে গিয়ে রাত সাড়ে ১১টার দিকে অসাবধানতাবশত তার পেটের ডানপাশে গুলি লেগে যায়। পরে ওই রাতেই তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

পঙ্কজের চাচা প্রিয়তোষ তালুকদার বলেন, ঘটনার সময় আমি ছিলাম না। পরে জানতে পেরেছি পঙ্কজ তারা মামাতো ভাই প্রিয়মকে গুলি চালানো শেখাতে গিয়ে ভুলবশত ফায়ার হয়ে যায়। এতে গুলি পঙ্কজের পেটের ডানপাশে লাগে।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, মামাতো ভাইকে গুলি চালানো শেখাতে গিয়ে পঙ্কজ তালুকদার আহত হয়েছিল। পরে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠানো হলে আজ ভোরে সে মারা যায়। লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে । পাশাপাশি ভিক্টিমের আত্মীয়-স্বজনের কাছ থেকে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগ :