বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কোচিং বাণিজ্য ও নোটবই চলবে না : শিক্ষামন্ত্রী


প্রকাশের সময় :12 January, 2020 1:26 : PM

মোঃ জানে আলম (জনি):

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ভর্তি পরীক্ষার জন্য কোচিং দরকার হতে পারে। কিন্তু বাড়িতে বা স্কুলে কোনো প্রাইভেট কোচিং বাণিজ্য চলবে না। নোটবই বিক্রিতেও ছাড় দেওয়া হবে না। এ ব্যাপারে অভিভাবকদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

কৃতি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, জিপিএ-৫ পাওয়া মানেই একমাত্র সফলতা নয়। কেউ যেন মনে না করে সবারই জিপিএ-৫ পাওয়া উচিত। যারা জিপিএ-৫ পায়নি তাদেরও বিকল্প সফলতা আছে। শুধু ভালো ফল নয়, ভালো মানুষও হতে হবে। খেলাধুলা করতে হবে। শিক্ষার্থীদের পরিবেশ সচেতন হতে হবে।

আজ রবিবার নাটোরের গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম উপজেলার ২০১৮ ও ২০১৯ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৬৬৪ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি প্রদানসহ ক্রেস্ট, বই ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। সামাজিক সংগঠন কল্লোল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রবিবার দুপুর ১২টায় গুরুদাসপুর সরকারি পাইলট মডেল হাইস্কুল মাঠে ওই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এ দেশকে যারা জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, মাদকে পরিণত করতে চেয়েছিল তারা আজ জনগণ কর্তৃক বিতারিত। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের দল আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ পদ্মা সেতু হচ্ছে নিজের অর্থায়নে। হচ্ছে মেট্রোরেল, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, রাস্তাঘাটসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ঘরে ঘরে আজ বিদ্যুৎ। সারা দেশে ৩৫ কোটির বেশি বিনামূল্যের বই বিতরণ করা হয়েছে। বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীরা পেয়েছে নতুন বইয়ের ঘ্রাণ। সাহানা কার্টুনের মাধ্যমে নারীদের অধিকার আদায় ও সহিষ্ণুতা বন্ধেও কাজ করছে সরকার।

উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বনলতা সেনের নাটোর তথা চলনবিলে এখন পাকা রাস্তাঘাট হয়েছে। সরকারের সব উদ্যোগকে সফল করতে হলে সামাজিক সংগঠণের সহযোগিতার প্রয়োজন আছে। এক্ষেত্রে কল্লোল ফাউন্ডেশন গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম উপজেলার গণ্ডি পেরিয়ে দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে। সংগঠনটি ইতিমধ্যে এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে ওঠায় জয় বাংলা অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে। আশা করি এলাকাবাসী কল্লোল ফাউন্ডেশনের সাথেই থাকবেন।

তিনি আরো বলেন, পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে যাতে স্কুল বন্ধ না থাকে তার ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণসহ শিক্ষা অবকাঠামো আরো উন্নত করা হচ্ছে। বিলচলন শহীদ সামসুজ্জোহা সরকারি কলেজে একটি ছাত্রাবাস নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে স্থানীয় সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আব্দুল কুদ্দুস বক্তব্য রাখেন। অন্যদের মধ্যে বরিশাল-২৮ সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি সৈয়দা রুবিনা আক্তার মীরা, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. সাইদুর রহমান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শাহরিয়াজ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, কল্লোল ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন ও সাধারণ সম্পাদক মিল্টন উদ্দিন, কৃতি শিক্ষার্থী ইসমত আরা বকুল ও প্রভাত কুন্ডু বক্তব্য রাখেন।

এর আগে গুরুদাসপুর থানায় পুলিশ সদস্যরা শিক্ষামন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয় এবং বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতাসহ ৫২ থেকে ৭১ পর্যন্ত যারা দেশের জন্য জীবন দিয়েছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। সবশেষে দেশবরেণ্য শিল্পীদের সমন্বয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

ট্যাগ :