মোস্টবেট বাংলাদেশের সেরা বুকমেকার। স্পোর্টস বেটিং, অনলাইন ক্যাসিনো সকলের জন্য সীমাবদ্ধতা ছাড়াই উপলব্ধ, এবং একটি ব্যাঙ্ক কার্ডে Mostbet withdrawal সম্ভব!
Türkiye'nin en iyi bahis şirketi Mostbet'tir: https://mostbet.info.tr/

বাংলাদেশ, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

পরবর্তী রাষ্ট্রপতি কে হচ্ছেন জানা যাবে আজ


প্রকাশের সময় :১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ৭:১৫ : অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টার:

বাংলাদেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর মনোনয়নপত্র নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যাবে ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

রোববার সকালে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ‘নির্বাচনী কর্তা’ কাজী হাবিবুল আউয়ালের কাছে দলীয় প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দেবে প্রতিনিধি দলটি বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের একাধিক শীর্ষ নেতা।

এরপরই জানা যাবে বাংলাদেশের দ্বাবিংশতম রাষ্ট্রপতি কে হতে যাচ্ছেন। কেননা সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল আওয়ামী লীগ।

শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া এক বিবৃতিতে রোববার সকালে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সিইসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে বলে জানিয়েছেন।

১৯ ফেব্রুয়ারি হতে যাওয়া নির্বাচনে ‘নির্বাচনী কর্তার’ দায়িত্বে রয়েছেন সিইসি।

আইনি বাধ্যবাধকতা অনুসারে একক প্রার্থী থাকলে এবং তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করলে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তাকে নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে। আর প্রার্থী থাকলে ১৯ ফেব্রুয়ারি ভোট হবে সংসদে। আওয়ামী লীগের একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় তা হবে আনুষ্ঠানিকতা মাত্র।

তফসিল অনুযায়ী, রোববার সকাল ১০টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তার কার্যালয়ে মনোননয়নপত্র দাখিল করতে হবে। এরপরই মূলত সুস্পষ্ট হবে কে হতে যাচ্ছেন দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি।

এর আগে আওয়ামী লীগের সংসদীয় কমিটির সভায় প্রার্থী মনোনয়নের ভার দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর দেওয়া হয়। এখন পর্যন্ত দলের পক্ষ থেকে প্রার্থী কে হচ্ছেন তা প্রকাশ করা হয়নি।

রোববার দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছে রাষ্ট্রপতি পদে দলের পক্ষে মনোনীত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দিতে বলে রোববার রাতে জানিয়েছেন একাধিক শীর্ষ নেতা।

প্রতিনিধি দলে কাদেরের সঙ্গে দলের শীর্ষ নেতারাও যাবেন বলে তারা জানিয়েছেন।

স্বাধীনতার পর থেকে ২১ মেয়াদে এ পর্যন্ত ১৭ জন রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। বাংলাদেশের আইনে এক ব্যক্তি সর্বোচ্চ দুই মেয়াদে রাষ্ট্রপ্রধানের দায়িত্বে থাকতে পারেন।

বর্তমান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ তার দ্বিতীয় মেয়াদের শেষ প্রান্তে রয়েছেন। সেই হিসোবে নতুন রাষ্ট্রপতি হবেন এই পদে অষ্টদশ ব্যক্তি।

২০১৮ সালের ২৪ এপ্রিল ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন আবদুল হামিদ। সংবিধানের ১২৩ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, মেয়াদ অবসানের কারণে রাষ্ট্রপতি পদ শূন্য হওয়ার ক্ষেত্রে মেয়াদপূর্তির তারিখের আগের ৯০ থেকে ৬০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করতে হয়। ফলে ২৪ জানুয়ারি থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের। ইসি ১৯ ফেব্রুয়ারি ভোটের দিন রেখে তফসিল ঘোষণা করে।

তফসিল অনুযায়ী, আগ্রহী প্রার্থীরা ১২ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। ১৩ ফেব্রুয়ারি যাচাই বাছাইয়ের পর ১৪ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে।

প্রার্থীর সংখ্যা একজনের বেশি না হলে তাকেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে। আর একাধিক প্রার্থী হলে সংসদের অধিবেশন কক্ষে বিধিমালা অনুযায়ী ভোট হবে ১৯ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টার মধ্যে।

সংসদীয় গণতন্ত্র চালুর পর ১৯৯১ সালে একাধিক প্রার্থী হওয়ায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে একবারই সংসদের কক্ষে ভোট করতে হয়েছিল। পরে প্রতিবারই ক্ষমতাসীন দল মনোনীত প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে আসছেন।

ট্যাগ :