বাংলাদেশ, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাবেক মন্ত্রী এম.এ মান্নানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন কাউন্সিলর জাবেদ


প্রকাশের সময় :২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৮:২৫ : পূর্বাহ্ণ

এম.এইচ মুরাদঃ

মহান মুক্তিযুদ্ধে বিএলএফ ইস্টার্ন জোনের অধিনায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সাবেক সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মরহুম আলহাজ্ব এম এ মান্নান এর ১৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ।

সাবেক মন্ত্রী এম.এ মান্নানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিশিষ্ট সমাজসেবক, রাজনীতিবিদ, শিক্ষানুরাগী, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সদস্য ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ২৩নং উত্তর পাঠানটুলি ওয়ার্ডে বারবার নির্বাচিত কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ।

কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ বলেন,”মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সাবেক সংসদ সদস্য, সাবেক মন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক সফল সভাপতি, বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা মরহুম আলহাজ্ব এম.এ মান্নানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছি ও মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ২১ সেপ্টেম্বর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বঙ্গবন্ধুর পরম স্নেহধন্য রাজনীতিক ব্যত্তিত্ত্ব চট্টগ্রামের বীর পুরুষ জননেতা এম.এ মান্নান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহধন্য আলহাজ্ব এম.এ মান্নান চট্টগ্রামের রাজনৈতিক অঙ্গনের প্রিয়মুখ ছিলেন। বার্ধক্যেও রাজনীতির মাঠ ছেড়ে যাননি তিনি। আঞ্চলিক ও সাধু ভাষার মিশ্রণে এম.এ মান্নানের রসমিশ্রিত বক্তব্য উজ্জীবিত করতো নেতাকর্মীদের।

মুক্তিযুদ্ধে সংগঠকের ভূমিকা পালন করা আলহাজ্ব এম.এ মান্নান বাংলাদেশের প্রতিটি গণআন্দোলনে অবদান রেখেছেন তার নিজের অবস্থান থেকে। আওয়ামী লীগ বিরোধীদলে থাকার সময় হরতাল-অবরোধে মুজিব কোট গায়ে দিয়ে মিছিলের সামনের সারিতে থাকতেন চট্টলার এই সিংহ পুরুষ আলহাজ্ব এম.এ মান্নান। দল ক্ষমতায় আসার পরও সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করে গেছেন আজীবন। চট্টগ্রাম তথা বাংলার আপামর জনসাধারণ আলহাজ্ব এম.এ মান্নানকে যুগ যুগ ধরে বিনম্র শ্রদ্ধাভরে স্মরণ রাখবে এটাই আশা রাখছি।”

ট্যাগ :