বাংলাদেশ, সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

বান্দরবানে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে নরপিশাচ স্বামী!! স্বামী আটক


প্রকাশের সময় :২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ৪:৩১ : পূর্বাহ্ণ

মোঃ সেলিম:

বান্দরবানের লামা উপজেলায় পরকীয়া সন্দেহে শাহিনা আক্তার (২৭) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার স্বামী। ২৭ জানুয়ারি, সোমবার ভোরে উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি এলাকা তেলুনিয়া পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। শাহিনা আক্তার তেলুনিয়া পাড়ার বাসিন্দা মৃত ইব্রাহিমের মেয়ে।

এদিকে এ ঘটনার পরপরই নিহতের স্বামী ঘাতক মো. জাকির হোসেনকে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নজির আহমদ ও দিলুয়ারা বেগমের ছেলে মো. জাকির হোসেন ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক। শাহিনা আক্তার পরকীয়া করছে দীর্ঘদিন ধরে এমন সন্দেহ করে আসছিল তার স্বামী জাকির হোসেন। এর জেরে রোববার দিবাগত রাত ৩টার সময় শাহিনা আক্তারের সঙ্গে জাকির হোসেনের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে জাকির হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী শাহিনা আক্তারকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে পাশের একটি মুরগি খামারে ঢুকে মিজানুর রহমান ও সোহাগ নামে দুই ব্যক্তিকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে জাকির হোসেন।

ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে এবং ঘাতক মো. জাকির হোসেনকে আটক করে পুলিশ।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শাহিনা আক্তার এর সাথে ঘাতক স্বামী জাগিরের পনের বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে পাষন্ড স্বামী জাগির বিভিন্ন সময় শারিরীক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করে আসছে শাহিনকে। পাষন্ড স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে স্বামীর ঘর করবেনা বলে শাহীন আক্তার বাপের বাড়িতে চলে আসে মাস খানেক আগে।প্রায় এক মাস বাপের বাড়িতে অবস্থান করার পর ঘাতক স্বামী জাগির তার মাকে অনুরোধ করে তার বউকে ঘরে নিয়ে আসার জন্য। মা তাতে রাজি হয়ে গত শুক্রবার শাহিনার বাড়িতে যায়।সামাজিক ভাবে বৈঠক হলে স্ত্রী শাহিনা যেতে প্রথমে অশ্বীকার করলেও পরে মেয়ে ও ছেলের দিকে থাকিয়ে যেতে রাজি হয়। এই যাওয়া যে শেষ যাওয়া হবে শাহীনা ও তার পরিবার তা কখনো কল্পনা করেনি। ঠিক সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক রাত ৩ টায় ঘাতক স্বামী জাগির পরিকল্পিত ভাবে চুরি ও দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করলে শাহীনা আক্তারের মৃত্যু হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আপেল্লা রাজু নাহা জানান, নিহত শাহিনা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগ :