বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১ ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

নেত্রীর সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করায় বিদ্রোহীরা দল থেকে অটো বহিষ্কার হয়ে যাবেন: ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ


প্রকাশের সময় :১১ জানুয়ারি, ২০২১ ৪:৩৯ : পূর্বাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের আর ঘোষণা দিয়ে দল থেকে বহিষ্কার করা হবেনা , দলের শৃঙ্খলাভঙ্গ করায় জন নেত্রীর সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করায় তারা অটো বহিষ্কার হয়ে যাবেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

এবারের চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রাপ্ত কাউন্সিলর প্রার্থীদের দ্বিগুন বিদ্রোহী প্রার্থী। সাধারণ কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের সমর্থনে নির্বাচন করছেন ৪১ জন এবং সংরক্ষিত (মহিলা) কাউন্সিলর ১৪ জন ।
এর বাইরে আওয়ামী লীগের দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন ৯২ জন । যাদের মধ্যে রয়েছেন দলটির বর্তমান ১২জন সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর। এই সব বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে দলের মনোনয়ন প্রাপ্তদের।

গোয়েন্দা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা বিএনপি জামাতের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

এর আগে দলের প্রবীন নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বিদ্রোহী প্রার্থীদের হুশিয়ারী দিয়ে বলেছিলেন, যারা দলের সিদ্ধান্ত মানবেন না ৯জানুয়ারী সংবাদ সম্মেলন করে তাদের বহিষ্কার করা হবে। কিন্তু ৯জানুয়ারী আওয়ামী লীগ কোন সংবাদ সম্মেলন করেনি। এমনকি বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে তাও জানায়নি।

তাই বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে শেষ পর্যন্ত কি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে তা জানতে চাইলে ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন বলেন, যারা দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে নির্বাচন করছেন তাদের অনুষ্ঠানিক ভাবে আর দল থেকে বহিষ্কার করা হবেনা। শৃঙ্খলাভঙ্গকারীরা অটো বহিষ্কার হয়ে যাবেন।

তিনি বলেন, এইসব বিদ্রোহীরা দলের সাথে বিদ্রোহ করেছে, তাই তারা পার পাবেনা। আওয়ামী লীগ একটি শৃঙ্খলাবদ্ধ দল। এসব বিদ্রোহীরা যখন দল থেকে মনোনয়ন চেয়েছিল তখন লিখিত দিয়েছিল দলের মনোনয়ন না পেলে তারা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করবে।সুতরাং তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার না করা মানে দলের বিরোধিতা করা।
ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বলেন, এইসব বিদ্রোহীরা নিজেরা মনোনয়ন প্রত্যাহার না করলে জোর করে তো কিছু করা যাবেনা। আমরা তো তাদের সাথে মারপিট করতে পারিনা।
এদিকে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী। তার নির্বাচনী একটি সমাবেশের মঞ্চ থেকে বিদ্রোহী প্রার্থী আনজুমান আরা বেগমকে নামিয়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।ঘটনার সময় নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী উপস্থিত থাকলেও নীরব ভূমিকা পালন করেন এই বিষয়ে ওনাকে প্রশ্ন করা হলে উনি বলেন বিদ্রোহী প্রার্থী এবং তার সমর্থকদের জায়গা দলে হবেনা প্রতি ওয়ার্ড একই রকম হবে আমাদের কাছে দল বড়  নেত্রীর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত।

নগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক চন্দন ধর বলেন, বিদ্রোহী প্রার্থীদের বাপারে কেন্দ্র থেকে কড়া নির্দেশ আছে। আমরা নগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিষয়ে কঠোর অবস্থানে আছি।

ট্যাগ :