বাংলাদেশ, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১ ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে কাল করোনার টিকা পাবেন সাড়ে তিন লাখ মানুষ


প্রকাশের সময় :২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৪:০৬ : পূর্বাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সারাদেশের পাশাপাশি ফের একদিনের গণটিকা কার্যক্রম চলবে চট্টগ্রামেও। মহানগরের ওয়ার্ড ও উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়ে আগামীকাল মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) এ গণটিকা দেয়া হবে। একদিনের গণ টিকা ক্যাম্পেইনে মহানগরসহ চট্টগ্রাম জেলায় প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হবে। তবে আগে থেকে সুরক্ষা প্লাটফর্মে নিবন্ধনধারীরাই গণ টিকা ক্যাম্পেইনে টিকা পাবেন এবার। নিবন্ধনধারীদের মধ্য থেকে যারা এসএমএস পাবেন, তারাই সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড ও উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়ে স্থাপন করা বুথে গিয়ে মঙ্গলবার টিকার প্রথম ডোজ নিতে পারবেন। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে প্রথম দফায় গত ৭ আগষ্ট সারাদেশে গণ টিকা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। ওই দিনের গণ টিকায় প্রথম ডোজ গ্রহীতাদের পরবর্তীতে ৭ সেপ্টেম্বর ২য় ডোজ দেয়া হয়। প্রথম দফার গণ টিকা কার্যক্রমে সারাদেশে ৪৫ লাখ মানুষকে টিকার প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছিল। তবে এবার ২৮ সেপ্টেম্বরের গণ টিকায় সারাদেশে একদিনে ৮০ লাখ মানুষকে টিকার আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

নতুন এ সিদ্ধান্তের আলোকে ইউনিয়ন পর্যায়ে আগের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি সংখ্যক মানুষকে টিকার আওতায় আনা হচ্ছে। প্রথম দফার গণ টিকায় প্রতি ইউনিয়নে ৬০০ জনকে টিকা দেয়া হয়েছিল। এবার প্রতি ইউনিয়নে দেড় হাজার মানুষকে টিকার প্রথম ডোজ দেয়া হবে। আর সিটি কর্পোরেশনের প্রতি ওয়ার্ডে আগে ৯০০ জনকে টিকা দেয়া হয়েছিল। এবার প্রতি ওয়ার্ডে ১ হাজার জনকে টিকা দেয়া হবে।

হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৪১টি ওয়ার্ডে ৪১ হাজার মানুষ এদিন (মঙ্গলবার) টিকার প্রথম ডোজ পাবেন। আর প্রতি ইউনিয়নে দেড় হাজার করে জেলার ২০০টি ইউনিয়নে ৩ লাখ মানুষ টিকার আওতায় আসবেন। সবমিলিয়ে জেলার ৩ লাখ ৪১ হাজার (প্রায় সাড়ে তিন লাখ) মানুষ মঙ্গলবার টিকার প্রথম ডোজ পাবেন। এ সংখ্যা গতবারের দ্বিগুণেরও বেশি। গতবার গণ টিকায় চট্টগ্রামের দেড় লাখের কিছু বেশি মানুষ টিকা পেয়েছেন।

এদিকে, গতবারের গণ টিকায় আগে থেকে যারা স্থানীয় কাউন্সিলর ও মেম্বারদের তালিকায় নিবন্ধিত ছিলেন, কেবল তারাই টিকা গ্রহণের সুযোগ পেয়েছেন। অনেক ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা তালিকাভুক্তদের টোকেন সরবরাহ করেছেন। কেন্দ্রে গিয়ে ওই টোকেন দেখিয়ে সহজেই টিকা নিতে পেরেছেন মানুষ। ইউনিয়ন পর্যায়েও জনপ্রতিনিধিদের তৈরি করা তালিকা অনুযায়ী টিকা দেয়া হয়েছে।

তবে এবার আর জনপ্রতিনিধিদের তালিকা অনুযায়ী টিকা দেয়া হচ্ছে না। আগে থেকে যারা সুরক্ষা প্লাটফর্মে নিবন্ধন করেছেন কিন্তু এখনো টিকা পাননি, তারাই টিকা প্রাপ্তিতে অগ্রাধিকার পাচ্ছেন। নিবন্ধনধারীদের মধ্য থেকে যাদের মোবাইলে এসএমএস পাঠানো হবে, তারা বাসার নিকটে স্থাপন করা বুথে গিয়ে টিকা নিতে পারবেন। এক্ষেত্রে এসএমএস-এ কেন্দ্র হিসেবে যা-ই উল্লেখ থাকুক, বাসার নিকটবর্তী বুথে টিকা নেয়া যাবে বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি। মহানগর ও উপজেলার সবখানে এই সুযোগ পাওয়া যাবে। তবে বয়স্ক, প্রতিবন্ধী ও নারীদের ক্ষেত্রে বিশেষ অগ্রাধিকার থাকছে জানিয়ে সিভিল সার্জন বলেন, বয়স্ক, প্রতিবন্ধী ও নারীদের কারো যদি নিবন্ধন করা না থাকে, তবে এনআইডি কার্ড নিয়ে গেলে বুথে স্পট রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে তাদের টিকা দেয়া হবে। অন্যদের ক্ষেত্রে এ সুযোগ থাকবে না। কেবল নিবন্ধনধারীদের মাঝে যারা এসএমএস পাবেন, তারাই টিকা পাবেন।

প্রসঙ্গত, গতবারের গণ টিকায় সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মডার্নার টিকা এবং উপজেলা পর্যায়ে সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ করা হয়। তবে এবার সিটিকর্পোরেশন ও উপজেলা পর্যায়ের সবখানেই কেবল সিনোফার্মের টিকা দেয়া হবে। গণ টিকা কার্যক্রম পরিচালনায় এরইমধ্যে সিনোফার্মের আরো ৪ লাখ ৭৫ হাজার ডোজ টিকা চট্টগ্রামে পৌঁছে গেছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি।

ট্যাগ :