বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১ ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামের চকবাজারে অত্যাধুনিক সুপারমল বালি আর্কেড উদ্বোধন হচ্ছে আজ


প্রকাশের সময় :২ এপ্রিল, ২০২১ ৬:৩৪ : অপরাহ্ণ

এম.এইচ মুরাদঃ

উদ্বোধন হতে যাচ্ছে চকবাজারস্থ শেঠ গ্রুপের মালিকানাধীন চট্টগ্রামের সর্ববৃহৎ অত্যাধুনিক সুপারমল বালি আর্কেড। সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়া নিয়ে নির্মিত বালি আর্কেডে থাকছে বিজনেস, বিনোদন, শপিং এবং ফ্যামিলি এন্টারটেইনমেন্টের পরিপূর্ণ সব আয়োজন। বালি আর্কেড উদ্বোধন উপলক্ষে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এসব তথ্য জানান শেঠ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব মোহাম্মদ সোলায়মান আলম শেঠ। সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, ২ এপ্রিল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাণিজ্য ও বিনোদনের প্রাণকেন্দ্র বালি আর্কেড উদ্বোধনের মাধ্যমে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। সোলায়মান আলম শেঠ বলেন, শেঠ প্রপার্টিজ লিঃ এর একটি সিগনেচার প্রকল্প হিসেবে বিশ্বমানের আধুনিক সব সুবিধা ও নান্দনিক শৈল্পিকতায় নির্মিত হয়েছে বালি আর্কেড। ১১ তলা বিশিষ্ট স্বয়ংসম্পূর্ণ বাণিজ্যিক কমপ্লেঙ হিসেবে বালি আর্কেড প্রকল্পটি নির্মিত হয়েছে শহরের প্রাণ কেন্দ্র চকবাজার সিরাজদৌলা সড়কে। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন শেঠ গ্রুপের সিইও আফতাব আলম শেঠ, ডিরেক্টর ওয়াহিদুল আলম শেঠ, ডিরেক্টর সারিস্ত বিনতে নুর এশনা, অপারেশন ডিরেক্টর টুলু-উশ্‌-শামস্‌, ডিরেক্টর উজায়ের আলম শেঠ, ডিরেক্টর উমায়ের আলম শেঠ, ডিএমডি মোহাম্মদ রোসাঙ্গীর।

ব্রিফিংকালে তিনি সাংবাদিকদের জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাকে আরও গতিশীল করতে শেঠ প্রপার্টিজের অনন্য উদ্যোগ চট্টগ্রামের সর্ববৃহৎ সুপারমল ‘বালি আর্কেড’। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশের জনগণের জন্য শেঠ প্রপার্টিজের এ এক অনন্য উপহার।

যদিও ১৭ই মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে এটি উদ্বোধনের কথা থাকলেও রাষ্ট্রীয় ও জাতীয় অনুষ্ঠানমালার কারণে পিছিয়ে নেয়া হয়েছে। মোহাম্মদ সোলায়মান আলম শেঠ বলেন, মুক্তিযুদ্ধ আমাদের চেতনা, আমাদের শরীরের রক্ত সঞ্চালন, কথাবলার শক্তি ও স্বাধীনতা। তাই বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে সুপারমল বালি আর্কেড উদ্বোধন করবেন মুক্তিযোদ্ধা চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী। এতে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রামের স্বনামধন্য শিল্পপতি, বরেণ্য শিক্ষাবিদ, সমাজপতি, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক পরিষদবর্গ। উল্লেখ করা প্রয়োজন মরহুম আজিজুর রহমান চৌধুরীর একমাত্র কন্যা, মরহুম মাহাবুবুল আলম শেঠ (বাচ্চু নবাব) এর সহধর্মিনী মরহুমা সখিনা বেগমের (বালি) নামে চট্টগ্রামের সর্ববৃহৎ সুপারমল ‘বালি আর্কেড’ এর নামকরণ করা হয়েছে।

সিনেপ্লেঙ, ফুডকোট, কনভেনশন হলসহ সর্বমোট ২৫০টি শপ, শো-রুম এবং ডিসপ্লে সেন্টার রয়েছে বালি আর্কেডে। বিশ্বমানের আর্কিটেকচারাল ডিজাইনে নির্মিত এই প্রকল্পে রয়েছে ৩০ হাজার স্কয়ার ফিটের দেশের অন্যতম বৃহৎ এমিউজমেন্ট পার্ক, ৩টি সিনেপ্লেঙ সাথে রয়েছে চট্টগ্রামের প্রথম এবং সর্ববৃহৎ অভিজাত শ্রেণীর ফ্যামিলি এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্টিনেশন ‘ক্যাসাব্লাংকা’। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে আরো বড় বড় মার্কেট আছে কিন্তু বালি আর্কেড হচ্ছে দেশের প্রথম বিশ্বমানের সুপারমল যেখানে এপসের মাধ্যমে গাড়ি পাকিং নিয়ন্ত্রণ, দোকানে পণ্যের বিস্তারিত জানতে এবং অর্ডার করতে পারবেন ক্রেতারা। এছাড়াও রয়েছে আন্তর্জাতিক পৃথক পৃথক কুইজিন বেইস ফুডকোট, স্বতন্ত্র লেডিস জোন, যেখানে ক্রেতা বিক্রেতা সকলেই থাকবেন নারী। রয়েছে বিভিন্ন ব্র্যান্ডশপ সম্বলিত মোবাইল ফোন, মোবাইল এঙেসরিজ, কসমেটিক জোন, জেন্টস ব্র্যান্ডশপ, লাইফস্টাইল, পার্লারসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড প্রতিষ্ঠান। এখানে থাকবে তাদের শো-রুম। পুরো শপিং মলটিই ফ্রি ওয়াইফাই-এর আওতাভুক্ত এবং বিজ্ঞাপনসহ বিভিন্ন ভিডিও কনটেন্ট প্রদর্শনে শপিংমলের সম্মুখে স্থাপন করা হয়েছে দুটি ১১শ স্কোয়ার ফিটের সুবিশাল জায়ান্ট স্ক্রিন।

সুপারমলের চকবাজার তেলিপট্টি মোড় থেকে দক্ষিণে টাক শাহ্‌ মিয়ার মাজার ও পশ্চিমে কেয়ারী সহ সমস্ত এলাকা সার্বক্ষণিক সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত থাকবে।

ট্যাগ :