মোস্টবেট বাংলাদেশের সেরা বুকমেকার। স্পোর্টস বেটিং, অনলাইন ক্যাসিনো সকলের জন্য সীমাবদ্ধতা ছাড়াই উপলব্ধ, এবং একটি ব্যাঙ্ক কার্ডে Mostbet withdrawal সম্ভব!
Türkiye'nin en iyi bahis şirketi Mostbet'tir: https://mostbet.info.tr/

বাংলাদেশ, রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪ ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আইএমএফের ঋণ নেব, তবে কঠিন শর্তে নয়: কাদের


প্রকাশের সময় :৯ নভেম্বর, ২০২২ ৬:৪৯ : পূর্বাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ঋণ নেব। তবে কঠিন শর্ত মেনে নেব না। যেটা যৌক্তিক সেটাই হবে।’

সরকার আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণ চাইলেও সংস্থাটির কঠিন শর্ত মেনে নেবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সচিবালয়ে বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

বৈশ্বিক ও অভ্যন্তরীণ সংকটের পরিপ্রেক্ষিতে অর্থনীতিতে যে চাপ সৃষ্টি হয়েছে, তা মোকাবিলায় বাংলাদেশের অন্যতম উন্নয়ন সহযোগী ওয়াশিংটনভিত্তিক ঋণদানকারী সংস্থা আইএমএফের কাছে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ চায় বাংলাদেশ। বর্তমান বিনিময় হার অনুযায়ী যা বাংলাদেশি টাকায় ৪ লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকার বেশি।

এ বিষয়ে চলতি বছরের জুলাইয়ের শেষ দিকে ওয়াশিংটনে আইএমএফের প্রধান কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিক চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ সরকার। তারই অংশ হিসেবে ঋণ দেয়ার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক আলোচনা করতে আইএমএফের দক্ষিণ এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রধান রাহুল আনন্দের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল গত ২৬ অক্টোবর ঢাকায় আসে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলেন, ঋণের টাকা পেলে বৈদেশিক লেনদেনের ভারসাম্য, বাজেট সহায়তা ও জলবায়ুর প্রভাব মোকাবিলায় ব্যয় করা হবে।

আইএমএফের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সরকারের চলমান আলোচনা প্রায় শেষ পর্যায়ে। আজ বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের মধ্য দিয়ে শেষে হচ্ছে তাদের এই সফর।

ঋণের শর্ত নিয়ে টানা ১৫ দিন সরকারি বিভিন্ন দপ্তর ও সংস্থার সঙ্গে দর-কষাকষির পর বুধবার একটি বিৃবতি দেয়ার কথা সফররত আইএমএফ মিশনের। সফরের আগের দিন মঙ্গলবার বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করেন আইএমএফ কর্মকর্তারা।

বুধবার দুপুরে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সচিবালয়ে তার দপ্তরে শেষ বৈঠকে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে আইএমএফ প্রতিনিধিদল। বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার, অর্থ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব শরিফা খানসহ অর্থ বিভাগের নীতিনির্ধারক পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিতি থাকবেন।

ট্যাগ :