বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১ ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

আচিল রোগের লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা


প্রকাশের সময় :২০ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৪৬ : পূর্বাহ্ণ

ডাঃ নুসরাত সুলতানাঃ

ওয়ার্ট বা আচিল হলো হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাস (এইচপিভি) নামে এক ধরণের ভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট ত্বকের একটি রোগের নাম। এইচপিভি ত্বকের উপরের স্তরটিকে সংক্রমিত করে। সাধারণত কাটা বা আঘাত প্রাপ্ত ত্বকের কোনও অংশের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে এ সংক্রমন ঘটায়। এর ফলে ত্বকের উপরের স্তরটি দ্রুত বাড়তে থাকে, যা ওয়ার্ট বা আচিল তৈরি করে। বেশিরভাগ আচিল কয়েক মাসের মধ্যে নিজেরাই সেরে যায়।

প্রকার এবং কী কারণে ঘটে?

হিউম্যান প্যাপিলোমাভাইরাস (এইচপিভি) এর সংক্রমনে দুই ধরণের ওয়ার্ট হয়।

১। সাধারণ আচিল বা কমন ওয়ার্ট

২। জেনিটাল ওয়ার্ট

ওয়ার্ট শরীরের যে কোনও জায়গায় হতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, 

*সাধারণ ওয়ার্ট প্রায়শই হাতে হয়ে থাকে তবে সেগুলি শরীরের অন্যান্য জায়গায়ও হতে পারে। 

*প্ল্যান্টার ওয়ার্ট  পায়ের তলায় হতে দেখা যায়।

*জেনিটাল ওয়ার্ট গোপন অংগে ও তার চারপাশের ত্বকে হয়ে থাকে।

আচিল কীভাবে ছড়িয়ে পড়ে?

আচিল সহজেই হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাসের সাথে সরাসরি সংস্পর্শের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ওয়ার্ট স্পর্শ করে এবং তারপরে আপনার নিজের শরীরের অন্য একটি অংশ স্পর্শ করলেও তা আবার শরীরের অন্য স্থানে সংক্রমিত হয়। তোয়ালে, ক্ষুর বা অন্যান্য ব্যক্তিগত সরঞ্জামের মাধ্যমেও এ সংক্রমন হতে পারে। 

জেনিটাল ওয়ার্ট ছড়ায় যৌন মিলনের মাধ্যমে।

এইচপিভির সংস্পর্শের পর, কোনও আচিল লক্ষ্য করার আগে ত্বকের নিচে বেশ কয়েক মাস ধরে এটি ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পায়।

চিকিৎসাঃ

১। স্যালিসাইলিক এসিড

২। ক্রায়োথেরাপি

৩। সার্জিক্যাল রিমোভাল

৪। লেজার ইত্যাদি।

ডাঃ নুসরাত সুলতানা
ক্লিনিক্যাল, কস্মেটিক ডার্মাটোলজিস্ট এন্ড লেজার স্পেশালিষ্ট।

ট্যাগ :