বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১ ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শুরু হয়েছে মেগা রিয়েলিটি শো ‘বিএম এলপি গ্যাস’ ইসলামিক আইকন প্রতিযোগিতা ২০২১


প্রকাশের সময় :২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ৭:০১ : অপরাহ্ণ

মোঃ মোরশেদুল হক আকবরীঃ

আসছে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে দেশব্যাপী শুরু হয়েছে জাতীয় প্রতিযোগিতা ও মেগা রিয়েলিটি শো ‘বিএম এলপি গ্যাস, ইসলামিক আইকন ২০২১’। বাংলাদেশে এই প্রথম ইসলামিক ট্যালেন্টদের নিয়ে এর আয়োজক গার্ডিয়ান রিসার্চ ফাউন্ডেশন। আয়োজক সহযোগী হিসেবে থাকছে মিডিয়া মিক্স কমিউনিকেশন্স। এতে ইসলামিক কারেন্ট নলেজে পারদর্শী ১৮ থেকে ৩৫ বছরের মুফতি, দাওরায়ে হাদিস, ফাজিল, কামিলসহ যেকোনো কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। গত ২০ ফেব্রুয়ারির থেকে দেশব্যাপী এর অডিশন পর্ব শুরু হয়। চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ পর্যন্ত। বাছাই প্রক্রিয়া বিভাগ ও জেলা পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া অনলাইনের মাধ্যমেও বাছাই প্রক্রিয়া চলবে। বাছাইকৃতদের ঢাকায় এনে ৬ মার্চ থেকে গ্রুমিং করানো হবে।

প্রতিযোগিতার বিষয় বস্তুর মধ্যে রয়েছে, বিষয়ভিত্তিক কুরআনের আয়াত, সরল অনুবাদ, শব্দে শব্দে অনুবাদ, কুরআন নাজিলের ঐতিহাসিক পটভূমি, আয়াতের মূল বক্তব্য, ব্যাখ্যা ও শিক্ষা, বিষয় সংশ্লিষ্ট হাদিস, ইসলামী জ্ঞান সংক্রান্ত কুইজ, সিরাত ও ফিকাহ, থাকবে মহাগ্রন্থ আল-কুরআন ও হাদিসের শব্দানুবাদ, বাক্যানুবাদ, শানে-নুজুল, ব্যাখ্যা, শিক্ষা ও বিধিবিধান। অনুষ্ঠানটি রমজান মাসে প্রতিদিন রাত ১০টা ৫০ মিনিটে বেসরকারি টেলিভিশন জিটিভিতে প্রচার হবে।

অনুষ্ঠানটির মূল পর্বে বিজয়ী ১ম, ২য় ও ৩য়সহ মোট ১০ জনকে ১৫ লাখ টাকার পুরস্কার দেয়া হবে। যা দিয়ে তারা বিদেশে উচ্চশিক্ষা ও ওমরাহ হজ্জ পালনের সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে রয়েছে প্রথম পুরস্কার সাত লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার চার লাখ টাকা এবং তৃতীয় পুরস্কার আড়াই লাখ টাকা।

অনুষ্ঠানটিতে বিচারক হিসেবে থাকছে দেশ-বিদেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন ও ইসলামিক স্কলারগণ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গার্ডিয়ান রিসার্চ ফাউন্ডেশন ও সেন্ট্রাল শরিয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকসের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, স্মার্ট গ্রুপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান বিএম এনার্জি বিডি লিমিটেডের পরিচালক মাহফুজুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের অধ্যাপক ড. নকীব মুহাম্মদ নসরুল্লাহ, বায়তুল মোকাররমের ভারপ্রাপ্ত খতিব মুফতি মহিবুল্লাহিল বাকী নদভী, ইসলামিক আইকনের পরিচালক খালিদ সাইফুল্লাহ বকসী প্রমুখ।

ড. গিয়াস উদ্দিন তালুকদার বলেন, মদিনা সনদ বাস্তবায়নের মাধ্যমে সর্বপ্রথম অসাম্প্রদায়িক চেতনার রাষ্ট্র গড়ার ধারণা দিয়েছেন হজরত মুহাম্মদ সা:। কুরআনের নির্দেশনা যত মানা হবে তত সুস্থ সমাজ গঠন করা সহজ হবে।

খালিদ সাইফুল্লাহ বকসী বলেন, রাসূলুল্লাহ সা: আল্লাহর বাণী প্রচারের মাধ্যমে সাংবাদিকদের মতো ভূমিকা পালন করেছেন। বর্তমানে সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে গণমাধ্যম। ইসলামিক আইকনও এর গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হতে যাচ্ছে।

ড. নকীব মুহাম্মদ নসরুল্লাহ বলেন, এই অনুষ্ঠান ইসলামিক স্কলারস তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

মুফতি মহিবুল্লাহিল বাকী নদভী বলেন, মুসলমানদের মধ্যে ইনটেলেকচুয়ালিটি না এলে এই জাতি উন্নত হবে না। আর এই ইনটেলেকচুয়ালিটির জন্য কুরআনের সহযোগিতা নিতে হবে। এই ধরনের আয়োজন এতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ট্যাগ :