বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

অনলাইনে ধামাকা অফারের নামে প্রতারণা! দম্পতি গ্রেফতার


প্রকাশের সময় :29 September, 2020 8:20 : AM

স্টাফ রিপোর্টার:

‘অফার! অফার! অফার! আপনাদের সবার জন্য এক ধামাকা অফার! পাইকারি দামে পাওয়া যাবে। যেকোনো চারটি ড্রেস ১২০০ টাকা!’

ফেসবুকে ‘ফ্যাশন হাউজ’ নামে একটি পেইজে কম দামে মেয়েদের পোশাকের আকর্ষণীয় ছবির পোস্ট দিয়ে কম দামে বিক্রির লোভনীয় অফার দিয়ে আসছিল এই পেইজের স্বত্বাধিকারী। এতে অনেকেই অকৃষ্ট হয়ে অনলাইনে অর্ডার করতেন। শর্ত অনুযায়ী পণ্যের দাম মোবাইল ব্যাংকিয়ের মাধ্যমে অগ্রিম পরিশোধ করলেও আজ অবধি কোনো ক্রেতাই অর্ডার করা পণ্য পায়নি। বরং ওই পেইজ থেকে অর্ডারকৃতদের ব্লক করে দেওয়া হতো।

প্রতারণার অসংখ্য ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে অনলাইনে পোশাক বিক্রির নামে প্রতারণার চালিয়ে অর্থ আত্মসাতকারী এই চক্রের দুই জনকে খুলনা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সাইবার পুলিশ সেন্টার।

গ্রেফতার হওয়া প্রতারকরা হলেন- ‘ফ্যাশন হাউস’ ফেসবুক পেইজের স্বত্বাধিকারী ওসমান গণি (২৫) ও তার স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার স্বর্ণা (২১)।

এসময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত চারটি মোবাইল ফোন, একটি ল্যাপটপ, ১৬টি সিম উদ্ধার করা হয়। সিআইডির সাইবার পুলিশ বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অতিরিক্ত এসপি) কামরুজ্জামান একাত্তর বাংলা নিউজকে বলেন, হাজারও ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে সিআইডির সাইবার পুলিশ অনুসন্ধান শুরু করে। এক পর্যায় প্রতারণার সত্যতা পাওয়া গেলে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযান চালিয়ে গত ২৪ সেপ্টেম্বর খুলনা মহানগরের কাশেম নগর আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রতারক ওসমান গণি ও তার সহযোগী স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার স্বর্ণাকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে এই দম্পতি জানায়, তারা দীর্ঘ এক বছর ধরে ‘ফ্যাশন হাউজ’ নামে ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে হাজারও মানুষের সঙ্গে প্রতারণ করে আসছিল। ক্রেতাদের কাছ থেকে অগ্রিম টাকা নিয়ে পণ্য না পাঠিয়ে ফেসবুক পেজের থেকে তাদের ব্লক করে রাখতেন। এরপর তারা নিজেদের আড়াল করতে ‘ফ্যাশন হাউজ’ পেইজের নাম পরিবর্তন করে ‘ফেসবুক জোন’ নামে একই প্রতারণামূলক কাজ চালিয়ে আসছিল।

তিনি বলেন, আসামিদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা এ পর্যন্ত কত টাকা প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছে তা জানা যাবে। এছাড়াও তাদের কাছে প্রতারণার শিকার অসংখ্য ভুক্তভোগীর অভিযোগ আমরা পাচ্ছি।

গ্রেফতার আসামিদের বিরুদ্ধে রাজধানীর পল্টন মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ট্যাগ :